মোবাইল দিয়ে ফ্রী তে ট্রেডিং করে ইনকাম। মোবাইল দিয়ে বিটকয়েন আয়। বিট কয়েন ইনকাম।

মোবাইল দিয়ে বিটকয়েন আয়। বিট কয়েন ইনকাম । মোবাইল দিয়ে ফ্রী তে ট্রেডিং করে ইনকাম।
আসসালামু আলাইকুম ওয়া রহমাতুল্লাহ । অনলাইন থেকে ট্রেডিং করে ইনকাম করা বর্তমান সময়ে খুবই জনপ্রিয় একটা কাজ। দিন দিন এর চাহিদা বৃদ্ধি পাচ্ছে। দেশ-বিদেশের বহু বড় বড় ধন কূপের মালিকরা জয়েন করছে ট্রেডিং করার জন্য। আমাদের অনেকেরই স্বপ্ন ট্রেডিং করে ইনকাম করা কিন্তু আমাদের পর্যাপ্ত ফান্ড নেই। যারা চাচ্ছেন ট্রেডিং এ ঢুকার জন্য কিন্তু তেমন কোন ফান্ড নেই আজকে তাদের জন্য একটা সাইট শেয়ার করব। এখানে সম্পূর্ণ ফ্রিতে আপনারা একাউন্ট তৈরি করার পর মাইনিং করে ইনকাম করতে পারবেন এবং পরবর্তীতে সেটা দিয়ে ট্রেডিং করতে পারবেন।
রেফার কোডঃ BNS144724813
প্রথমে লিংকে ক্লিক করার পর সাইটে প্রবেশ করবেন। সেখানে একটা অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে হবে। রেফার কোড টি ব্যবহার করে যদি একাউন্ট তৈরি করেন। তাহলে অ্যাকাউন্ট করার সাথে সাথে তিন ডলার ফ্রিতে পাবেন।
সবগুলো ইনফরমেশন সঠিকভাবে দিয়ে একাউন্ট তৈরি করবেন। আপনার মোবাইল নাম্বার ভেরিফাই করে নিতে হবে। মোবাইল নাম্বারে একটা কোড পাবেন সেই কোড টা দিয়ে সাবমিট করলে ভেরিফাই হয়ে যাবে।
কিভাবে সম্পূর্ণ ফ্রিতে মাইনিং করে ইনকাম করব? 
এখানে একদম মধ্যখানে আপনি মাইনিং এর অপশন টা দেখতে পাবেন সেখানে ক্লিক করবেন। ক্লিক করার পর আপনি মাইনিং অপশনটা পেয়ে যাবেন সেখানে ক্লিক করবেন। সেখানে ক্লিক করার পর একটা ক্যাপচা আপনার সামনে আসবে। সেটা ফিলাপ করলেই আপনার মাইনিংটা চালু হয়ে যাবে। একবার মাইনিং চালু করার পর সেটা চার ঘণ্টা অটোমেটিক চলবে। চার ঘন্টা পর পুনরায় আপনাকে মাইনিং চালু করতে হবে। এভাবে আপনি যত বেশি মাইনিং চালু রাখবেন সেই অনুযায়ী আপনার ইনকামটা হবে।
 
কিভাবে ফ্রিতে মাইনিং করে ট্রেডিং করব? 
যখন আপনার মাইনিং করা ব্যালেন্সে ১০ ডলার হয়ে যাবে। তখন আপনি সেটা উইড্র করে ওয়ালেট ব্যালেন্সে নিয়ে যেতে পারবেন। মাইনিং চলাকালীন সময়ে সেটা আপনি নিতে পারবেন না। যখন মাইনিংটা কমপ্লিট হয়ে যাবে পুনরায় মাইনিং চালু করার আগে সেটা আপনি ওয়ালেটে নিয়ে নেবেন। ওয়ালেটে নেওয়ার পর আপনি এখানে অনেকগুলো কয়েন রয়েছে সেগুলো তে ট্রেডিং করতে পারবেন।
আমরা যখন ফিউচার ট্রেডিং করি তখন আমরা উপরের দিকে এবং নিচের দিকে দুই দিকে নিতে পারি। কিন্তু এইখানে আমরা ফ্রিতে মাইনিং করে যেই ব্যালেন্সটা পাবো সেটা দিয়ে আমরা কেবলমাত্র উপরের দিকে ট্রেড নিতে পারব। আমাদের ট্রেডের অ্যামাউন্ট যখন প্রফিট হবে আমরা ট্রেড ক্লোজ করে সেই প্রফিটটা বুক করে নিতে পারব।
কিভাবে ফ্রিতে পেমেন্ট নিব? 
আপনি যখন কোন ট্রেডে প্রফিট করবেন আমি আপনাদের সাজেশন করব। তখন আপনারা সেই প্রফিট করা কয়েনটাকে অন্য কয়নে কনভার্ট করে নেবেন। যেমন এইখান থেকে আমরা সাধারণত বিটকয়েন ক্যাশে উইড্রো করে থাকি। তাই আপনি যেই কয়েকটা প্রফিট হবে সেটা বিটকয়েন ক্যা সে কনভার্ট করে নেবেন। প্রফিট করা অ্যামাউন্ট দিয়ে পুনরায় ট্রেডিং ওপেন করবেন না।
যখন আপনার অ্যামাউন্ট নির্দিষ্ট পরিমাণ হয়ে যাবে তখন আপনি এখান থেকে পেমেন্ট তুলে নিতে পারবেন। সাধারণত ১২ থেকে ১৩ ডলারের মত হলে বিটকয়েন ক্যাশ এ পেমেন্ট তুলে নেওয়া যায়। তুলে নিয়ে অন্যান্য একচেঞ্জারে বা কোন ওয়ালেটে নিয়ে আপনি সেগুলো আপনার ইচ্ছামত ব্যবহার করতে পারবেন। অথবা চাইলে টাকা হিসেবে কনভার্ট করে নিতে পারবেন।
এই সাইট থেকে আপনি মাসে অন্তত ১০ থেকে ১৫ ডলারের মত ফ্রিতে মাইনিং করতে পারবেন। মাইলিং করা ব্যালেন্স আপনি তুলতে পারবেন না। যেই ব্যালেন্সটা আপনি প্রফিট করবেন সেটা তুলতে পারবেন। আপনি যদি আপনার ফ্রেন্ডকে এখানে ইনভাইট করেন সে ক্ষেত্রে আপনি সেখান থেকে কমিশন পাবেন। এইভাবে যত বেশি ফ্রেন্ড কে ইনভাইট করতে পারবেন আপনার কমিশন বেশি হবে। তবে ইনভাইট না করতে পারলে ও কোন সমস্যা হবে না নিজের মাইনিং করা কমিশন পাবেন।

Releted Search: মোবাইল দিয়ে বিটকয়েন আয়, ১ বিটকয়েন সমান কত টাকা, বিট কয়েন ইনকাম,  বিটকয়েন একাউন্ট খোলার নিয়ম, বিটকয়েন কি, ফরেক্স ট্রেডিং স্ট্রাটেজি, stormgain, stormgain cloud mining,

Leave a Comment