অনলাইন থেকে কি কি কাজ করে ইনকাম করা যায়। মোবাইল ও পিসি দিয়ে অনলাইন থেকে টাকা আয়।

অনলাইন থেকে কি কি কাজ করে ইনকাম করা যায়। মোবাইল ও পিসি দিয়ে অনলাইন থেকে আয়।

আসসালামু আলাইকুম ওয়া রহমাতুল্লাহ

অনলাইন থেকে কি কি কাজ করে ইনকাম করা যায়। এই বিষয় নিয়ে আজকে আলোচনা করব। আজকে অনেক গুলো পদ্ধতি দেওয়া হবে। যা ব্যবহার করে আপনি ও অনলাইন থেকে ইনকাম করতে পারবেন। অনলাইন থেকে আপনি একাধিক উপায়ে ইনকাম করতে পারেন। নিচে কিছু ইনকাম এর পদ্ধতি বলা হলো:

ওয়েবসাইট এবং এপ্লিকেশন ডেভেলপমেন্ট: আপনি ওয়েবসাইট এবং এপ্লিকেশন ডেভেলপমেন্ট করে ইনকাম করতে পারেন। বিভিন্ন ওয়েবসাইট এবং এপ্লিকেশন ডেভেলপমেন্টে আপনি নির্দিষ্ট পরিমাণ টাকা পাবেন।

ওয়েবসাইট ডিজাইন এবং ডেভেলপমেন্ট: আপনি ওয়েবসাইট ডিজাইন এবং ডেভেলপমেন্ট করে ইনকাম করতে পারেন। আপনি নির্দিষ্ট পরিমাণ টাকা পাবেন যখন কেউ আপনার ওয়েবসাইট থেকে কোন প্রোডাক্ট কিনবেন বা আপনার ওয়েবসাইটে বিজ্ঞাপন দেখাবেন।

ডিজিটাল মার্কেটিং: আপনি ডিজিটাল মার্কেটিং সেবা দিয়ে ইনকাম করতে পারেন। একজন ডিজিটাল মার্কেটিং এক্সপার্ট হিসাবে আপনি কোম্পানি বা ব্যক্তির জন্য সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং, সার্চ ইঞ্জিন ,  ফেইসবুক অথবা গুগল এডস ক্যাম্পেইন, ইমেইল মার্কেটিং, ওয়েব কন্টেন্ট এবং এসইও সেবা দিতে পারেন। আপনি প্রতিটি প্রকল্পে নির্দিষ্ট মূল্য চার্জ করতে পারেন।

অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং: আপনি অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং সেবা দিয়ে ইনকাম করতে পারেন। এটি একটি সম্পূর্ণ অনলাইন বিজ্ঞাপন প্রণেতা যারা উন্নয়নের জন্য প্রস্তুত প্রোডাক্ট বা সেবা বিক্রয় করে। আপনি একটি লিঙ্ক প্রদান করবেন যা ক্লিক করলে বা প্রোডাক্ট কিনলে আপনি নির্দিষ্ট কমিশন পাবেন।

অনলাইন শিক্ষার মাধ্যমে টিউটোরিয়াল এবং কোর্স বিক্রি করা: আপনি নির্দিষ্ট কোর্স পাঠানো এবং টিউটোরিয়াল প্রদান করে টাকা উপার্জন করতে পারেন। একটি স্বল্প ফি চার্জ করে আপনি একজন শিক্ষার্থীকে একটি কোর্স সরবরাহ করতে পারেন।

অনলাইন ফ্রিল্যান্সিং: আপনি অনলাইনে ফ্রিল্যান্সিং করে ইনকাম করতে পারেন। বিভিন্ন ওয়েবসাইট এবং প্লাটফর্মে প্রজেক্ট লিস্ট থাকে এবং আপনি একটি প্রজেক্ট নিতে পারেন যা আপনি সম্পূর্ণ অনলাইনে পূর্ণ করতে পারেন।

অনলাইন বিষয়বস্তু লেখন: আপনি অনলাইনে বিষয়বস্তু লেখন করে টাকা উপার্জন করতে পারেন। আপনি আপনার ব্লগে বিষয়বস্তু লিখতে পারেন এবং এটি পাবলিশ করতে পারেন বা অন্য ওয়েবসাইটে লিখে পাবলিশ করতে পারেন।

ফাইবার, আপওয়ার্ক, ফ্রীলেন্সার সহ মার্কেট প্লেস এ কাজ করে:  নিম্নোক্ত কাজগুলি করা যায়:


১) ওয়েব ডিজাইন এবং ডেভেলপমেন্ট

২) এসইও এবং ডিজিটাল মার্কেটিং

৩) একাউন্টিং এবং বুককিপিং

৪) ডাটা এন্ট্রি এবং ওয়েব সার্ভে অপারেশন

৫) আউটসোর্সিং মার্কেটপ্লেসে লেখা এবং এডিটিং

৬) ট্রান্সক্রিপশন এবং ট্রান্সলেশন

৭)মোবাইল অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট

৮) ব্লগ লেখা এবং এডিটিং

৯)ভিডিও এডিটিং এবং অ্যানিমেশন

১০) সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং

১১) গ্রাফিক্স ডিজাইন এবং এ্যানিমেশন

১২) ভাইরাল মার্কেটিং এবং প্রমোশন

১৩) এক্সেল এবং স্প্রেডশীট এর কাজ

১৪) ওয়েব সার্ভিস এবং সাপোর্ট

১৫) গোস্ট লেখা এবং সম্পাদনা

১৬) সামাজিক নেটওয়ার্ক ডেভেলপমেন্ট

১৭) ডিজিটাল আর্ট এবং ডিজাইন প্রোডাকশন


ব্লগিং করে ইনকাম: ব্লগিং করে ইনকাম করা ভালো একটা পদ্ধতি । ব্লগিং করে আপনি ইন্টারনেটে আয় করতে পারেন। ব্লগিং হল ইন্টারনেটে লিখা একটি বিষয়বস্তুর মাধ্যমে প্রতিষ্ঠান করা। ব্লগিং শুরু করার জন্য আপনি একটি ওয়েবসাইট খুলতে পারেন এবং আপনার ব্লগ একটি ওয়েবসাইটের মধ্যে সংগ্রহ করা হয়। আপনার ওয়েবসােইট এ ভালো ভিজিটর আসলে এড নেটওয়ার্ক থেকে, এফিলিয়েট মার্কেটিং করে , স্পন্সরশিপ থেকে ও আরো অনেক ভাবে ইনকাম করতে পারবেন।

বিভিন্ন ওয়েবসাইট ও অ্যাপ এ কাজ করে: অনেক ওয়েবসাইট ও অ্যাপ আছে কাজ করে ইনকাম করার জন্য। এগুলো তে কাজ করার জন্য তেমন কোন য্যেগ্যতা দরকার হয় না। আর এসব কাজ থেকে খুব বেশি ইনকাম ও করা যায় না। তবে নতুন অবস্থায় আপনি এসব এ কাজ করে কিছু ইনকাম করতে পারবেন ।

এইসব কাজগুলি ফাইবারে করা হয়। এছাড়াও, ফাইবারে আরও অনেক ধরনের কাজ থাকে যা করে আপনি ইনকাম উপার্জন করতে পারেন।

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

অর্ডিনারি আইটির নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url