ব্লগিং থেকে কি কি উপায়ে টাকা ইনকাম করা যায়। ব্লগিং করে টাকা আয় করার পদ্ধতি।

ব্লগিং থেকে কি কি উপায়ে টাকা ইনকাম করা যায়। ব্লগিং করে টাকা আয় করার পদ্ধতি।

আসসালামু আলাইকুম ওয়া রহমাতুল্লাহ

আপনি নিশ্চয় এই পোস্ট টি একটি ওয়েবসাইট এ পড়ছেন। আচ্ছা আমি যে এই পোস্ট টা কষ্ট করে লিখে সাবমিট করলাম এর কি কোন কারন আছে। অভষ্যই ইনকাম করার জন্য ই আমি এটা করছি। আপনি যদি জানতে চান ব্লগিং করে কি কি ভাবে ইনকাম করা যায়। তাহলে পোস্ট টা শেষ পযন্ত পড়ার অনুরোধ রইল। 

ব্লগিং করে আপনি ইন্টারনেটে আয় করতে পারেন। ব্লগিং হল ইন্টারনেটে লিখা একটি বিষয়বস্তুর মাধ্যমে ওয়েবসাইট করা। ব্লগিং শুরু করার জন্য আপনি একটি ওয়েবসাইট খুলতে পারেন এবং আপনার ব্লগ একটি ওয়েবসাইটের মধ্যে সংগ্রহ করা হয়। নিচে কিছু ব্লগিং করে আয় করার উপায় দেওয়া হল:

1. গুগল অ্যাডসেন্স: আপনি আপনার ব্লগে গুগল অ্যাডসেন্স ব্যবহার করে আপনার সাইটে প্রদর্শিত বিজ্ঞাপন দ্বারা ইনকাম করতে পারেন। এর জন্য এডসেন্স এপ্রুব নিতে হবে। এডসেন্স ছাড়াও অনলাইন এ অনেক এড নেটওয়ার্ক রয়েছে। 

2. এফিলিয়েট মার্কেটিং: এফিলিয়েট মার্কেটিং হল অন্য কোন প্রতিষ্ঠানের পণ্য বা সেবার বিজ্ঞাপন এবং লিঙ্ক আপনার ব্লগে পোস্ট করে কাস্টমারকে আপনার লিঙ্ক দিয়ে সেই পণ্য কিনতে উৎসাহিত করা। যদি কোন ব্যবসা আপনার ব্লগে বিজ্ঞাপন দেখে সেখান থেকে কোন পণ্য কিনে তাহলে আপনি কমিশন পাবেন।

3. স্পন্সরশিপ: যদি আপনার ব্লগে ভালো ভাবে ট্রাফিক থাকে তাহলে আপনি স্পন্সরশিপ এবং বিজ্ঞাপন দিয়ে আরও প্রতিষ্ঠানকে আপনার ব্লগে প্রচার করতে পারেন। এর ফলে সেই কম্পানি আপনাকে টাকা দিবে। 

4. ডিজিটাল প্রোডাক্ট বিক্রয়: আপনি নিজেদের তৈরি কোন ডিজিটাল প্রোডাক্ট তৈরি করে তা বিক্রি করতে পারেন। ডিজিটাল প্রোডাক্ট হল বই, টিউটোরিয়াল, সফটওয়্যার, ওয়েবসাইট থিম এবং অন্যান্য।

5. ইভেন্ট অর্গানাইজিং: আপনি আপনার ব্লগে থেকে আয় করতে পারেন ইভেন্ট অর্গানাইজিং করে। আপনি কোন সেমিনার বা কনসার্ট এর পরিচালনা করতে পারেন এবং প্রবেশপত্র এবং টিকিট বিক্রি করতে পারেন।

6. ফ্রিল্যান্সিং: আপনি ব্লগিং সম্পর্কিত জ্ঞান ব্যবহার করে ফ্রিল্যান্সিং করে আয় করতে পারেন। আপনি লেখালেখি, এসইও, ব্লগ ডিজাইন এবং অন্যান্য সেবা প্রদান করে আয় করতে পারেন।

7. বুক লিস্ট: যদি আপনার ব্লগে অনেক লোক আসেন এবং সেখান থেকে আপনার নির্দেশনার সাথে কিছু করতে চান, তাহলে আপনি একটি বুক লিস্ট তৈরি করে সেটি বিক্রি করতে পারেন। বুক লিস্ট একটি স্বচ্ছতা এবং ব্যাপক পরিচালনার আছে।

8. অন্য ওয়েবসাইট এ লিখে: আপনার পক্ষে যদি একটা ওয়েবসাইট তৈরি করা ঝামেলা মনে হয়। আপনি অনেক ওয়েবসাইট আছে লেখালেখি করার জন্য টাকা দেয়। আপনি সেখানে লেখালেখি করতে পারেন। এর জন্য লেখালিখিও করার দক্ষতা ভালো হলে ইনকাম বেশি হবে। এভাবে ও ব্লগিং থেকে অনেক মানুষ আয় করছে। 

ব্লগিং থেকে আয় করার আরও উপায় রয়েছে যেমন কোর্স বিক্রি করা। নিজের এড দিয়ে ব্যাবসা করা। আপনার কোন প্রডাক্ট থাকলে সেটা আপনি মানুষ এর সামনে তুলে নিতে পারবেন। আপনি অনেক সাইট রেয়ার করে রেফার করার মাধ্যমে ইনকাম করতে পারবেন। এছাড়াও অনেক ইনকাম এর পদ্ধতি রয়েছে। আজকের পোস্ট এ পযন্ত। ভালো থাকবেন সবাই আল্লাহ হাফেজ। 


Next Post Previous Post